ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি অডিটোরিয়ামে গতকাল ১৩ জুলাই দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হলো রক-ও-ফোন কনসার্ট। কনসার্টটি আয়োজন করেছিলো গারো সংগঠন আ’চিক ব্যান্ড কমিউনিটি অফ বাংলাদেশ (এবিসিবি)।

শুক্রবার বেলা ১২টায় শুরু হওয়া কনসার্টটি চলেছে রাত সাড়ে ন’টা পর্যন্ত। কনসার্টে ছিল  এগারোটি গারো ব্যান্ডের পরিবেশনা। এছাড়াও গেস্ট ব্যান্ড হিসেবে উপস্থিত ছিল দূর্গ। কনসার্টের অন্যতম আকর্ষণ ছিলো ব্যান্ড ইন্দালো-এর পরিবেশনা। গারো সংগঠনের আয়োজন করা কনসার্টটিতে মূলত মান্দি (গারো ভাষা) গান পরিবেশিত হলেও প্রায় সকল জাতি-গোষ্ঠির মানুষেরই উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। “সংগীতের কোনো ভাষা হয় না, সংগীত নিজেই একটি ভাষা”– দশক-শ্রোতাদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি যেন এ কথারই জানান দিচ্ছিলো বারবার।

ইন্দালো-এর পরিবেশনার সময় জন কবির; ছবি: শারাবান তাহুরা আলী শারিন

২০১৫ সাল থেকে এবিসিবি আয়োজন করে আসছে রক-ও-ফোন কনসার্টটি। এক বছর বিরতির পর এ বছর তৃতীয়বারের মত কনসার্টটি আয়োজিত হল। উপযুক্ত প্লাটফর্মের অভাবে নিজেদের প্রতিভাকে প্রকাশ করতে না পারা গারো ব্যান্ডগুলোর জন্যে এটি একটি বিশাল সুযোগ তৈরি করে দিচ্ছে। পাশাপাশি মান্দি সংগীতকে সকলের সামনে তুলে ধরতেও সাহায্যে করছে। কনসার্টটি প্রসঙ্গে এবিসিবি-এর সভাপতি ডেভিড কেনী রেমা বলেন, “সঙ্গীত আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য। এটি একটি সার্বজনীন ভাষা। এর মাধ্যমে পরস্পরের মাঝে সংযোগ তৈরী সম্ভব। আমাদের এই আয়োজনটি সম্পূর্ণ তরুণদের উপরে। যারা কাজ করছে, যারা আয়োজন করছে, যারা ব্যান্ডে পারফর্ম করছে- এরা সবাই তরুণ। এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আমরা আচিক কমিউনিটিকে উপস্থাপন করছি বলে এই না যে আমরা অন্য সংস্কৃতি বা অন্যকিছু এখানে অনুমোদন করছি না। ভবিষ্যতে আমরা এটাকে একটা মিলনস্থল হিসেবে দেখতে চাই।

বছরে একবার কনসার্টটি অনুষ্ঠিত হলেও বিভিন্ন জেলায় ছড়িয়ে থাকা সদস্যদের একত্রিত করা, অনুশীলনের সময় ও স্থানসহ অন্যান্য প্রতিবন্ধকতাকে উপেক্ষা করে এর আয়োজন করতে বেশ বেগ পেতে হয় এবিসিবি-কে। তবে সবচেয়ে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় স্পন্সর সংকট। এবারের কনসার্টের জন্য কিছু ইভেন্ট পার্টনার পাওয়া গেলেও কোনো স্পন্সর পায়নি এবিসিবি। ফলে নিজস্ব তহবিল ও ব্যান্ডগুলোর কাছ থেকে সংগ্রহ করা সীমিত অর্থই তাদের একমাত্র ভরসা। আগের দুটি কনসার্টও এবিসিবি করেছে নিজ তহবিল থেকে। এবিসিবি-এর মিডিয়া কোওরডিনেটর ম্যাথিউস চিরান জানান, ভারতের মেঘালয় থেকে কয়েকটি জনপ্রিয় গারো ব্যান্ড নিয়ে আসাসহ আরও কিছু পরিকল্পনা ছিলো এবিসিবি-এর এবারের কনসার্টটিকে ঘিরে। কিন্তু সীমিত তহবিল ও স্পন্সর না থাকায় সেসব আর হয়ে ওঠেনি।

গারো ব্যান্ডগুলোর মধ্যে এবারের কনসার্টটিতে গান পরিবেশন করেছে জাগরিং, র‍্যাথ অফ ক্রোনাস, ক্রেমলিন, তান্ত্রিক, ক্রিটিকলিস্ট, বিফোরএস, দ্য কোড, এলায়েন্স, রে রে, জুমাং ও স্যাক্রামেন্ট । কনসার্টটির সার্বিক সহযোগিতায় ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গারো পরিবার।

Featured Image credit ABCB

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.